ই-কমার্স এর ডেলিভারি নিয়ে কাস্টমারের অভিযোগ সবচাইতে বেশি!

মার্চ এপ্রিলের দিকের কথা। তখন পুরো পৃথিবীতে না ছড়ালেও, চীনে মহামারীর তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছিল করোনাভাইরাস। কড়া লকডাউন! জনমানব সবাই ঘরে। তাদেরকে পৌঁছুতে হবে খাবার সহ সব নিত্যপ্রয়োজনীয সামগ্রী। সরকারও হিমশিম খেয়ে যাচ্ছে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে। এমন সময়ে সরকারের পাশে এসে দাঁড়ালো চীনের ই-কমার্স । করোনার স্থবিরতার মধ্যেও চীনের ই-কমার্সকে বেগবান রেখেছে শক্তিশালী ডিজিটাল সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট এবং ডেলিভারি সিস্টেম। এমনটাই জানিয়েছে হার্ভার্ড বিজনেস রিভিউ।

চীন থেকে এবার দক্ষিন এশিয়ার দেশগুলোর দিকে তাকাই। বর্তমান পৃথিবীর মধ্যে এই অঞ্চলের ই-কমার্স সবচাইতে দ্রুত বর্ধমান। গত তিন বছরে এই অঞ্চলের ই-কমার্সে কম্পাউন্ড এনুয়াল গ্রোথ রেট প্রায় ৬০% বেড়েছে! কিন্তু এই অঞ্চলের কাস্টমার স্যাটিসফ্যাকশন পর্যালোচনা করে দেখা গিয়েছে যে, এখানকার ৩৪% কাস্টমার ই-কমার্স ডেলিভারির উপর আস্থা রাখতে পারেন না। এবং কাস্টমারের অভিযোগের মধ্যে ৯০% অভিযোগই সময় মত প্রোডাক্ট ডেলিভারি এবং  ডেলিভারি স্ট্যাটাস কমিউনিকেশন সম্পর্কিত।

আমাদের দেশে ই-কমার্স

আমাদের দেশেও এখন ই-কমার্সের ধারা শুরু হয়েছে। অনেক ই-কমার্স শুরুতেই মুখ থুবড়ে পড়ছে, কিছু কিছু ই-কমার্স এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। আর খুবই অল্প কিছু ই-কমার্স ব্যবসায়ী কিছুটা এগিয়ে আছে। কেউ এগিয়ে বা পিছিয়ে থাকলেও আমাদের ই-কমার্সে প্রোডাক্ট ডেলিভারি নিয়ে গ্রাহকের অভিযোগ কিন্তু কম নয়। কিছু কিছু ই-কমার্স সঠিক সময়ে ডেলিভারি দিতে চাইলেও অর্ডার শিডিউলিং ও ডিস্ট্রিবিউশন করতে বেশ ঝামেলা পোহায়। ফলে তার প্রভাব ডেলিভারি প্রসেসিং কে প্রভাবিত এবং সময় সাপেক্ষ করে তুলছে। নিজস্ব ডেলিভারি সিস্টেমের পাশাপাশি থার্ড পার্টি ডেলিভারি সিস্টেমের উপরেও নির্ভরতা রয়েই যাচ্ছে।

ডেলিভারি সিস্টেম শক্ত ও প্রযুক্তিনির্ভর না করতে পারলে পণ্য গ্রাহকের দরজায় পৌঁছানো এতটা সহজ কথা নয়। এই কাজকে চীন সহজ করে নিয়েছে ডিজিটাল ডেলিভারি মেইন্টেইনেন্সের মাধ্যমে।

একজন গ্রাহক যখন প্রোডাক্ট অর্ডার করেন এবং অর্ডার পাবার পর যখন ডেলিভারির জন্য পাঠানো হয়, প্রোডাক্ট যেন সঠিক কাস্টমারের কাছে সঠিক সময়ে পৌঁছুতে পারে সেটা নিশ্চিত করতে হয় বিক্রেতাকে। কিন্তু এই কঠিন কাজটাকে সহজ করতে প্রয়োজন ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ বা সফটওয়্যার। এইরকম একটা ডিজিটাল অ্যাপ দারুণ কিছু সুবিধা প্রদান করে। যার ফলে ডেলিভারি ও সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট হয় আরও বেশি বেগবান। দক্ষ একটি ডেলিভারি সিস্টেম গড়ে ওঠে।  

ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ থেকে কী কী সুবিধা পাওয়া যায় দেখা যাক

অটোমেটিক ওয়ার্ক ফ্লো

ডেলিভারি সিস্টেমের একটা ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ থাকলে, অটোমেটিক কর্ম প্রবাহ তৈরি হয়। কাগজ কলম ছেড়ে এক অ্যাপ দিয়েই ডেলিভারি একটিভিটি ট্র্যাক করার পাশাপাশি মিস কমিউনিকেশন কমিয়ে আনা সম্ভব। ফলে ডেলিভারি প্রসেসের বেশ কয়েকটা কঠিন ধাপ আরও সহজ হয়ে যাবে। ডেলিভারি টিমকেও আরও কার্যকর করে তুলবে। 

রিয়েল টাইম ট্র্যাকিং

ডেলিভারির পরিমাণ যদি ১০ টা হয়, তাহলেও কিন্তু ড্রাইভারদের বা ডেলিভারি রাইডারের হদিস রাখা বেশ চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। আর ই-কমার্সের ডেলিভারি পারসনের সংখ্যা আরো কয়েক গুন বেশি। ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ এর মাধ্যমে রাইডার বা ড্রাইভারদের অবস্থান রিয়েল টাইম ট্র্যাক করা সম্ভব। ডেলিভারি সম্পন্ন করতে একজন রাইডার বা ড্রাইভার কত সময় সময় এবং কত দূরত্ব অতিক্রম করলো, সহজেই জানা যায়।

ডেলিভারি রুট অপটিমাইজেশন

কোন পথে ডেলিভারি চ্যানেল গড়ে তুললে অনেক বেশি ডেলিভারি একসাথে করা যাবে এবং সময় মতো ডেলিভারি করা যাবে, এটা নির্ধারণ করা খুবই কঠিন একটা কাজ। ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ এর মাধ্যমে রাস্তার ট্রাফিক এবং রুট দেখে প্ল্যান করা সহজ হয়। ফলে কম সময়ে অনেক বেশি ডেলিভারি সম্পন্ন করা যায়। 

যোগাযোগ সহজ করে

ডেলিভারি ডিস্ট্রিবউশনের পর ড্রাইভার কিংবা ডেলিভারি পারসনের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করতে হয়। ডেলিভারির আপডেট জানাতে হয়। কোন সমস্যা হলে সেটাও জানতে হয়। জানাতে হয়। ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ থাকলে, গুরুত্বপূর্ণ এই যোগাযোগগুলো করা যায় অয়ানায়াসেই।

ই-কমার্স অর্ডার ম্যানেজমেন্টের উন্নতি

ই-কমার্স বিজনেসে প্রতি মিনিটে মিনিটে অর্ডার আসতে থাকে। অর্ডার আসা মাত্র সেটা ডেলিভারি পারসনকে বুঝিয়ে দেয়াও বেশ কঠিন কাজ। এই কাজটাকে সহজ করে ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ এবং অর্ডার ম্যানেজমেন্ট আরো যুগোপযোগী করে তোলে। 

থার্ড পার্টি ডেলিভারির উপর নির্ভরতা কমে

থার্ড পার্টি ডেলিভারির উপরে যারা নির্ভর করেন, তাদের অর্ডার প্রসেসিং এবং ডেলিভারির জন্য আলাদা একটা হ্যাপা নিতে হয়। একটা ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার থাকলে নিজেদের ডেলিভারি টিম তৈরি করাও সহজ হয়। অন্যের ওপর নির্ভরতা কমে।

ই- কমার্সে নিজস্ব ডেলিভারি সিস্টেম তৈরি করতে, প্রযুক্তির ব্যবহার করা ছাড়া আর কোন সহজ রাস্তা নেই। কনভেন্স অ্যাপ তেমনই এক প্রযুক্তি। ই-কমার্সের সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট থেকে শুরু করে ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট যুগোপযোগী কর তোলে কনভেন্স অ্যাপ।

কনভেন্স অ্যাপ সম্পর্কে আরো জানতে ভিজিট করুন আমাদের ফেসবুক পেইজে বা ব্লগে

কনভেন্স অ্যাপটি ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে