Skip to content

FMCG কোম্পানিগুলোর চ্যালেঞ্জ এবং উত্তরণের উপায়

Fast Moving Consumer Goods (FMCG) একটি অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক এবং গতিশীল বিজনেস ইন্ডাস্ট্রি, যেখানে বড় বড় কোম্পানিগুলো ক্রমাগত বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়। এই ব্লগে, আমরা FMCG কোম্পানিগুলোর চ্যালেঞ্জ এবং এর সমাধান সম্পর্কে জানবো।

FMCG কোম্পানি কি?

যারা বিজনেস ইন্ডাস্ট্রিতে আছেন তারা সবাই কমবেশি FMCG কোম্পানি সম্পর্কে কমবেশি জেনে থাকবেন। FMCG এর পূর্ণ অর্থ হলো Fast-moving consumer goods. আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস যেমন খাদ্যসামগ্রী থেকে বাসার যাবতীয় দরকারি সবকিছু আমরা দোকান না হয় কোন সুপার শপ থেকে নিয়ে থাকি। এই সব কিছু FMCG পণ্যের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত।

FMCG কোম্পানি কিভাবে কাজ করে?

একটি FMCG কোম্পানি কিভাবে কাজ করে তার আগে জানতে হবে, যে সেই কোম্পানি কত বড় বা এর ব্যাপ্তি কত। আমাদের দেশের একটি বড় কোম্পানিকেই ধরা যাক, আকিজ কোম্পানি। আকিজ যে পণ্য উৎপাদন করে সেগুলা তাদের নিজস্ব একটি ডিপোতে মজুদ থাকে। এই ডিপো থেকে মজুদরত সকল ধরণের পণ্য, ডিস্ট্রিবিউটরদের কাছে ডিস্ট্রিবিউট হয়। সেখান থেকে প্রোডাক্টগুলো রিটেইলার কালেক্ট করে।

রিটেইলারদের কাছে প্রোডাক্ট পৌঁছে দেবার দায়িত্ব বেশিরভাগ সময় SR/ DSR দের থাকে। তারা দেখা যায় সেলস ম্যানেজারের আওতাধীন থাকে। সেলস ম্যানেজার রিজিওনাল সেলস ম্যানেজারের কাছে রিপোর্ট করে, রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার জোনাল সেলস ম্যানেজারের কাছে, জোনাল সেলস ম্যানেজার তার ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজারের কাছে রিপোর্ট করে থাকে। এই চেইন অফ কমান্ডে অনেক FMCG কোম্পানি তাদের প্রোডাক্ট ডিস্ট্রিবিউশন করে থাকে।

FMCG কোম্পানি সমূহের চ্যালেঞ্জ 

কোম্পানি তার উৎপাদিত পণ্য সারা দেশে ডিস্ট্রিবিউশন কিভাবে করে তা আমরা জানতে পারলাম। তবে এই ডিস্ট্রিবিউশন প্রসেস ঠিক রাখা যথেষ্ট কঠিন। যে কারণে কোম্পানিগুলোকে ভালোই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, যেমন:

কাজের পুনরাবৃত্তিতে কর্মদক্ষতা কমে যাওয়া

FMCG কোম্পানির প্রতিদিনের কাজের প্যাটার্ন একই ধরণের। ফিল্ড এমপ্লয়ি যখন মার্কেট ভিজিটে যায় তখন রিটেইল শপে গিয়ে অর্ডার কাটতে হয়। এখন প্রতিদিন একই ভিজিটে গিয়ে, কাগজে কলমে অর্ডার লিখতে গেলে অনেক সময় চলে যায়। প্রতিদিনে এই কাজের রিপিটেশন বা পুনরাবৃত্তিতে ফিল্ড এমপ্লয়িদের কাজের কর্মদক্ষতা অনেকহারে কমতে থাকে। যার প্রভাব বিজনেসে অনেক পড়ে।

অর্ডার ম্যানেজমেন্ট

ডিজিটাল যুগে কাগজে কলমে অর্ডার এর আপডেট এবং ট্র্যাকিং করা অনেক সময়সাপেক্ষ। প্রোডাক্ট কত? কি অর্ডার হচ্ছে বা প্রোডাক্ট কোথায় যাচ্ছে সেটার রিয়েল টাইম ডাটা তৎক্ষনাৎ পাওয়া যায় না। যে কারণে অর্ডার ম্যানেজমেন্ট হয় না ঠিকমতো।

ইনভেন্টরি ট্র্যাকিং

আপনার ডিপো থেকে কত প্রোডাক্ট বের হয়েছে, সেগুলার অর্ডার কনফার্ম হয়ে কতগুলো জায়গায় গিয়েছে, এই সব কিছুর হিসাব রাখা প্রায় অসম্ভব। আর যে কারণে একটা পারফেক্ট ইনভেন্টরি ম্যানেজেমেন্ট না থাকলে কোন কিছু ট্র্যাকিং এর আওতায় থাকবে না। যেখানে বেশিরভাগ কোম্পানি এইটাকে ম্যানুয়ালি ম্যানেজ করতে গিয়ে অনেক ঝামেলা পোহায়।

ধরা যাক, একজন SR রহিম স্টোর নামে একটা রিটেইল শপে একটা নির্দিষ্ট সংখ্যক প্রোডাক্ট ডেলিভারি করতে গিয়েছে। গিয়ে সেই শপের রিটেইলার দেখলো যেখানে হয়তো ১০ টা প্রোডাক্ট ডেলিভার করার কথা ছিলো সেখানে SR ডেলিভার করেছে ৮ টা। এখন এই ২ টা প্রোডাক্ট কম হবার কারণ হলো ইনভেন্টরি ম্যানেজমেন্ট ঠিক মত হয়নি। সেলস ম্যানেজার ঠিকমতো প্রোডাক্ট এর হিসাব না জানার কারণে DSR ও ঠিকমতো প্রোডাক্ট ডেলিভারি করে নাই। যে কারণে বুঝতেই পারছেন ইনভেন্টরি ট্র্যাকিং কত প্রয়োজন।

তাহলে এর সমাধান কি?

সমস্যা থাকলে তার সমাধানও থাকা উচিৎ। এখন FMCG কোম্পানিসমূহ এই সমস্যাগুলোতে থাকার কারণে তাদের ডেলিভারি প্রবলেম থেকে থাকে। একটু ভাবলে এর সমাধান চলে আসবে। অর্ডার ম্যানেজ থেকে ডেলিভারি এবং সাথে ইনভেন্টরি ম্যানেজ সবকিছু যদি একটা ডিজিটাল প্লাটফর্মে থাকে। এখন এরকম অটোমেটেড সফটওয়্যার/অ্যাপ কী আছে যেখানে এই সমস্যাগুলোর সমাধান হবে সহজে? উত্তর হলো, আছে। তা হলো কনভেন্স অ্যাপ। এখন আপনি ভাবতেই পারেন যে কনভেন্স অ্যাপ এমনকি যে এতো বড় সমস্যাগুলোর সমাধান করবে।

আমরা এতক্ষণ যেসব চ্যালেঞ্জ নিয়ে কথা বলে আসছিলাম, চলুন দেখি কনভেন্স কিভাবে সেই সমস্যার সমধান দিব।

কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি

প্রতিদিন ফিল্ড এমপ্লয়িদের একই জায়গায় ভিজিটে গিয়ে অর্ডার লিখতে অনেক সময় চলে যায়। কনভেন্স অ্যাপে আপনি আপনার ভিজিট প্ল্যান সেট করে রাখতে পারবেন। এতে করে আপনাকে রেগুলার একই জায়গায় ভিজিট এর ইনফরমেশন লেখা লাগবে না। এতে করে আপনার একই কাজ করতে যে সময় অপচয় হচ্ছিলো সেটা আর হবে না। এতে ফিল্ড এমপ্লয়িসহ কোম্পানির কর্মদক্ষতা বাড়বে।

অর্ডার এন্ড ডেলিভারি

কনভেন্সে অর্ডার অ্যাড করে তারপর সেটাকে লিস্ট আকারে রাখা যায়, এমনকি সেলস টার্গেট দেয়া যায়। এতে করে SR / DSR দেরকে একটা অর্ডার লিস্ট করে টার্গেট দিলে, সেটার আপডেট আপনি কনভেন্স অ্যাপে পেতে পারবেন। এতে প্রোডাক্ট ঠিকঠাক ডেলিভারি হয়েছে কিনা, দিনে কত প্রোডাক্ট ডেলিভারি হয়েছে, কত বাকি আছে তার একটা ডাটা পাওয়া যায়। এতে অর্ডার এবং ডেলিভারি নিয়ে চিন্তা অনেক কমে যায়।

ইনভেন্টরি ম্যানেজ

কনভেন্স ইনভেন্টরির ম্যানেজমেন্ট খুব ভালোভাবে করবে। কোন ওয়্যারহাউজে কি পরিমাণ প্রোডাক্ট আছে, কি পরিমাণ প্রোডাক্ট বের হয়েছে এই সব কিছুর হিসাব কনভেন্স রাখবে। কোন এরিয়াতে কোন প্রোডাক্ট এর চাহিদা বেশি বা কম, তার একটা সার্ভে করে সেটার ডাটা অনুযায়ী এরিয়াতে প্রোডাক্ট সাপ্লাই করতে পারবেন। যেখানে ইনভেন্টরি ম্যানেজমেন্ট FMCG কোম্পানিগুলোর জন্য একটি অতীব প্রয়োজন হয়ে দাঁড়িয়েছে, সেখানে কনভেন্স সব থেকে বেস্ট ইনভেন্টরি ম্যানেজ করতে আপনাকে সাহায্য করবে।

বিজনেস ইনসাইটস এন্ড ড্যাশবোর্ড

কনভেন্সে আপনি আপনার বিজনেসের ইনসাইটস এবং অ্যাডমিন ড্যাশবোর্ড প্যানেলের সাহায্যে বিজনেসের ডিসিশন এবং ডেভেলপ করতে সুবিধা হবে।

এফএমসিজি কোম্পানিগুলো এমন আরও অনেক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়। এই চ্যালেঞ্জগুলি প্রচুর পরিমাণে অর্ডার এবং একাধিক চ্যানেল পরিচালনা করা থেকে শুরু করে গ্রাহকদের সময়মত এবং সঠিক ডেলিভারি নিশ্চিত করা পর্যন্ত হতে পারে। তবে একটি অটোমেশন সফ্টওয়্যার ব্যবহারের মাধ্যমে FMCG কোম্পানিগুলো অর্ডার এবং ডেলিভারি ম্যানেজমেন্ট এবং ইনভেন্টরি রিলেটেড এই চ্যালেঞ্জগুলো খুব সহজেই সমাধান করতে পারে। যেমন কনভেন্স অ্যাপ। এই অ্যাপের মাধ্যমে অর্ডার এবং ডেলিভারি প্রক্রিয়ায় রিয়েল-টাইম ডাটা পাওয়া সম্ভব, যা কোম্পানিগুলিকে দক্ষতার সাথে তাদের বিজনেস অপারেশন পরিচালনা এবং ট্র্যাক করতে সক্ষম করে। এছাড়াও, অটোমেশনের মাধ্যমে FMCG কোম্পানিগুলিকে তাদের ডেলিভারি রুট অপ্টিমাইজসহ অন্যান্য সব চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে সাহায্য করে কনভেন্স অ্যাপ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 + thirteen =